Our Constitution


আমাদের গঠনতন্ত্রঃ

বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম

প্রস্তাবনা
আমরা শহীদ আবদুর রব সেরনিয়াবাত টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের শিক্ষার্থীবৃন্দ, ১৫ আগষ্ট, ২০১৬ জাতীয় শোক দিবসকে সামনে রেখে ক্যাম্পাসের শিক্ষার্থীদের স্ব স্ব লেখণী ফুটিয়ে তুলতে এবং নিজেদের কবি প্রতিভা জাগ্রত একটি দেয়াল প্রত্রিকা “সুঁই-সুতা” প্রতিষ্ঠা করেছি ।
আমরা অঙ্গীকার করেছি যে, এই সংগঠনের মূল লক্ষ্য হবে ক্যাম্পাসে সাহিত্যচর্চার পরিবেশ, গরিব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের সাহায্য সহযোগীতা, ক্যাম্পাসের আর্থসামাজিক উন্নয়ন ও শিক্ষার্থীদের লেখক সত্তাকে জাগ্রত করার।
আমরা দৃঢ়চিত্তে ঘোষণা দিচ্ছি যে, আমরা এই সংগঠনের মাধ্যমে ক্যম্পাসের প্রতিটা শিক্ষার্থীদের সাথে বিনয়ের সাথে চলব, ভ্রাতৃত্ববোধ বজায় রাখব এবং আমাদের কার্যকর্মের মাধ্যমে এই দেয়াল প্রত্রিকার নাম সারাদেশে ছড়িয়ে দিবো ইনশাআল্লাহ। তাই এই সংগঠনের প্রাধান্য অক্ষুন্ন রাখা এবং এর রক্ষন, সমর্থন ও নিরাপত্তাবিধান আমাদের একান্ত পবিত্র কর্তব্য।
এতদ্বারা ২৫শে শ্রাবণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ,৯ জুলাই ২০১৯ ইং এর আলোচনা মোতাবেক আমরা এ প্রস্তাবনা মেনে নিলাম।

নির্বাহী বিভাগ
১। অত্র কলেজের সম্মানিত শিক্ষকগণ সুই-সুতা এর উপদেষ্টা হতে পারবেন এবং কমিটির অনুমোদন দিতে পারবেন। উপদেষ্টাগণ সুই-সুতার সার্বিক দিকনির্দেশনা দিতে পারবেন।
২। সুঁই-সুতা দেয়াল পত্রিকার একজন সম্পাদক ও একজন সহসম্পাদক থাকবেন, যারা ক্যাম্পাসের শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী হিসেবে বিবেচিত।
 ৩। সম্পাদক ও সহ-সম্পাদক ছেলে-মেয়ে উভয় হতে পারবে। সম্পাদক সংগঠনের প্রধান। সংগঠনের সার্বিক পরিচালনা, মিটিং আয়োজন করা ও সকল সিদ্ধান্ত গ্রহণের দায়িত্ব তার। বিদায়ী কমিটি নতুন কমিটি আংশিক বা সম্পূর্ণরুপে গঠন করবেন।
৪। সম্পাদক কোন একটি অনুষ্ঠান অথবা কার্যক্রম পরিচালনার জন্য সহসম্পাদক ও অন্যান্য সদস্যদের সাথে মিটিং এর মাধ্যমে যোগাযোগ করবেন।
৫। সম্পাদকের মেয়াদঃ নতুন কমিটি প্রদানের পূর্বমূহূর্ত পর্যন্ত অথবা চতুর্থ বর্ষ ফাইনাল পরীক্ষার ১মাস পূর্ব পর্যন্ত।
৬। প্রস্তবনা লঙ্ঘন বা গুরুত্বর অসাদাচরনের অভিযোগে সম্পাদকের বিচার করা যাবে। তবে এ জন্য কমিটির সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্যদের স্বাক্ষরসহ উপযুক্ত কারন লিখিতভাবে উপদেষ্টা মন্ডলী স্যারদের কাছে দিতে হবে।
৭। শারীরিক অথবা মানসিক অসামর্থ্যের কারনে সম্পাদককে  পদ থেকে অপসারন করা যেতে পারে।
৮। সু্ঁই-সুতা এর যেকোনো অনুষ্ঠান আয়োজন করার ৫-৭ দিন পূর্বে , নূন্যতম ৫ সদস্যের একটি আয়োজক কমিটি গঠন করতে হবে, যাদের উপর উক্ত অনুষ্ঠান আয়োজনের সম্পূর্ণরুপে ন্যস্ত থাকবে।


সাধারণ নিয়মঃ
১।  সব শিক্ষার্থীর জন্য সমান সুযোগ নিশ্চিত করবে ।
২। সবাইকে বই পড়ার উৎসাহ প্রদানে কমিটি বিভিন্ন ধরনের প্রতিযোগীতা আয়োজন করবে।
। সম্পাদনা চালানোর জন্য প্রতিটা ব্যাচ থেকে কমপক্ষে একজন সম্পাদনা সহযোগী ও কলামিস্ট থাকতে হবে।
। সম্পাদনা সহযোগী ও কলামিস্টদের তাদের নিজস্ব কাজগুলো প্রতিমাসে যথাযথভাবে পালন করতে হবে ।
৫। মাসিক মিটিং এ উপস্থিত থাকতে হবে। সংগঠন চালানোর জন্য কমিটির প্রতিটা সদস্যকে যথা সময়ে মাসিক একটি নির্দিষ্ট পরিমান চাঁদা প্রদান করতে হবে।
৬। নিজের পদবী অনুযায়ী দায়িত্ব সঠিকভাবে পরিচালনা করতে হবে। সংখ্যা গরিষ্ঠতার ভিত্তিতে সংগঠনে গৃহীত সিদ্ধান্ত মেনে নিতে হবে৷
৭। সংগঠনের মিটিং বা অনুষ্ঠানে কোনো রকম অনৈতিক, অপরাধ ও অশ্লীলতামূলক কার্যকলাপ করা যাবে না। এ ধরণের কোনো কার্যকলাপে যুক্ত হলে, কমিটি থেকে তাকে বহিষ্কার করা হবে।
৮। দেয়াল পত্রিকার প্রতিটি সংখ্যার শৈল্পিক নিদর্শনগুলো রক্ষা করার জন্য কমিটি যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করবে।
। যদি কোন শিক্ষার্থী একাডেমিক পর্যায়ে কোন সেমিস্টারে সিজিপিএ ৪.০০ পায় তাকে উৎসাহ প্রদানে মহামূল্যবান পুরষ্কার বই দেয়ার ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে ।
১০। সুঁই-সুতার শিল্প প্রদর্শনে কোন নির্দিষ্ট ব্যক্তির ছবির স্কেচ জমা দেয়া যাবেনা।
বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দিবসে বা প্রতিবছরে ১টি দেয়াল পত্রিকা প্রকাশনা, ১টি চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগীতা১টি রচনা লিখন প্রতিযোগীতা আয়োজন করা আবশ্যক।
১২। "সুঁই-সুতা" কে আরও সামনে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য, সর্বদা সচেষ্ট থাকতে হবে৷


কার্যনির্বাহী কমিটির বিবরণ:
ক্যাম্পাসে বর্তমানে অধ্যায়নরত ব্যাচগুলোর শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে সর্বনিম্ন ২০ - সর্বোচ্চ ৩০ জন শিক্ষার্থীকে নিয়ে প্রতিবছর সুঁই-সুতার কমিটি গঠিত হবে। প্রতিষ্ঠানের প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা সিনিয়র সদস্য হিসেবে থাকবেন। কমিটির সর্বোচ্চ পদ সম্পাদক, যার উপর সংগঠন পরিচালনার যাবতীয় দায়িত্ব ন্যাস্ত থাকবে এবং এ পদের জন্য ক্যাম্পাসের সবচেয়ে সিনিয়র ব্যাচ প্রাধান্য পাবে। অত্র প্রতিষ্ঠানের সবচেয়ে জুনিয়র ব্যাচ কমিটিতে কোনো পদবীতে থাকতে পারবে না। তবে, ব্যাচ প্রতিনিধি হিসেবে থাকতে পারবে।

সম্পাদকঃ ১ জন
সহ-সম্পাদকঃ ১ জন
কোনো একটি বিভাগে সংগঠন পরিচালনার কাজের স্বার্থে এবং সার্বিক বিবেচনায় অতিরিক্ত সহযোগী পদ রাখা যাবে। যেমন, শিল্প বিভাগ।

প্রধান কার্য নির্বাহী শিল্প বিভাগঃ ১ জন
 সহকারী কার্য নির্বাহী শিল্প বিভাগঃ ১-২ জন

 প্রধান কার্য নির্বাহী অর্থ বিভাগঃ ১ জন
 সহকারী কার্য নির্বাহী, অর্থ বিভাগঃ ১-৪ জন

প্রধান কার্য নির্বাহী তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগঃ ১ জন
 সহকারী কার্য নির্বাহী তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগঃ ১ জন

 প্রধান কার্য নির্বাহী আলোকচিত্র বিষয়ক বিভাগঃ ১ জন
সহকারী কার্য নির্বাহী আলোকচিত্র বিষয়ক বিভাগঃ ১-২ জন

সম্পাদনা সহযোগীঃ প্রতি ব্যাচ থেকে ১-২ জন

শিল্প সহযোগীঃ প্রতি ব্যাচ থেকে ১-২ জন

কলামিস্টঃ প্রতি ব্যাচ থেকে ১-২ জন।

সম্পাদকঃ
তিনি সংগঠনের প্রধান। সংগঠনের সার্বিক পরিচালনা, মিটিং আয়োজন করা ও সকল সিদ্ধান্ত গ্রহণের দায়িত্ব তার।

সহ-সম্পাদকঃ
সংগঠন পরিচালনার কাজে সম্পাদককে সাহায্য করা সহ-সম্পাদকের কাজ। সম্পাদকের অনুপুস্থিতিতে সম্পাদকের যাবতীয় কার্যকলাপ পরিচালনা করা সহ-সম্পাদকের কাজ।

প্রধান কার্য নির্বাহী অর্থ বিভাগঃ
 সংগঠনের যাবতীয় আয়-ব্যয়ের হিসাব সংরক্ষণ করা এবং কমিটির সদস্যদের কাছ থেকে মাসিক অনুদান সংগ্রহ করা অর্থ বিভাগের প্রধান কার্য নির্বাহীর কাজ।


সহকারী কার্য নির্বাহী অর্থ বিভাগঃ
অর্থ বিভাগের প্রধান কার্য নির্বাহীকে তার কাজে যাবতীয় সাহায্য প্রদান করা এবং প্রধান কার্য নির্বাহীর অনুপস্থিতিতে তার যাবতীয় কার্যকলাপ পরিচালনা করা সহকারী কার্য নির্বাহীর কাজ।

প্রধান কার্য নির্বাহী শিল্প বিভাগঃ
দেয়াল পত্রিকা প্রকাশের ক্ষেত্রে পত্রিকার লে-আউট তৈরী করা, ডিজাইন করা শিল্প বিভাগের প্রধান কার্য নির্বাহীর কাজ। তাছাড়াও চিত্রাঙ্কন ও আলোকচিত্র প্রদর্শনীর এবং সংগঠনের যেকোনো অনুষ্ঠানের সাজসজ্জার পরিকল্পনা করার দায়িত্ব শিল্প বিভাগের।

সহকারী কার্য নির্বাহী শিল্প বিভাগঃ
শিল্প বিভাগের প্রধান কার্য নির্বাহীকে তার কাজে যাবতীয় সাহায্য প্রদান করা এবং প্রধান কার্য নির্বাহীর অনুপস্থিতিতে তার যাবতীয় কার্যকলাপ পরিচালনা করা শিল্প বিভাগের সহকারী কার্য নির্বাহীর কাজ।

শিল্প সহযোগীঃ
শিল্প বিষয়ক প্রধান কার্য নির্বাহীকে তার যাবতীয় কার্যকলাপ পরিচালনায় সহযোগীতা করা কাজ।

প্রধান কার্য নির্বাহী তথ্য প্রযুক্তি বিভাগঃ
দেয়াল পত্রিকা বিভিন্ন তথ্য, লেখা, চিত্র, আলোকচিত্র সংগঠনের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও ওয়েবসাইটে শেয়ার করা তথ্য প্রযুক্তি বিভাগের প্রধান কার্য নির্বাহীর কাজ।

 সহকারী কার্য নির্বাহী তথ্য প্রযুক্তি বিভাগঃ
তথ্য প্রযুক্তি বিভাগের প্রধান কার্য নির্বাহীকে তার কাজে যাবতীয় সাহায্য প্রদান করা এবং প্রধান কার্য নির্বাহীর অনুপস্থিতিতে তার যাবতীয় কার্যকলাপ পরিচালনা করা তথ্য-প্রযুক্তি বিভাগের সহকারী কার্য নির্বাহীর কাজ।
প্রধান কার্য নির্বাহী আলোকচিত্র বিভাগঃ
সংগঠনের যেকোনো অনুষ্ঠানে আলোকচিত্র ও ভিডিও ধারণ করা আলোকচিত্র বিষয়ক প্রধান কার্য নির্বাহীর কাজ।

সহকারী কার্য নির্বাহী আলোকচিত্র বিভাগঃ
আলোকচিত্র বিভাগের প্রধান কার্য নির্বাহীকে তার কাজে যাবতীয় সাহায্য প্রদান করা এবং প্রধান কার্য নির্বাহীর অনুপুস্থিতিতে তার যাবতীয় কার্যকলাপ পরিচালনা করা আলোকচিত্র বিভাগের সহকারী কার্য নির্বাহীর কাজ।

সম্পাদনা সহযোগীঃ
সম্পাদনা সহযোগী স্ব-ব্যাচের প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করবেন। দেয়াল পত্রিকার প্রতিটি প্রকাশনার জন্য নিজ ব্যাচের শিক্ষার্থীদেরকে অবগত করা, তাদের কাছ থেকে লেখা ও ছবি সংগ্রহ করা এবং সংশোধন করা তার প্রধান কাজ। পাশাপাশি সংগঠনের বিভিন্ন মিটিং এ কমিটি সদস্যদের উপস্থিতি নিশ্চিত করা সম্পাদনা সহযোগীর কাজ। তাছাড়াও সংগঠন পরিচালনার জন্য সম্পাদকে সাহায্য করাও সম্পাদনা সহযোগীর কাজ।

কলামিস্টঃ
 "সুঁই-সুতা" এর দেয়াল পত্রিকা ও অনলাইন পত্রিকা প্রকাশের সময়, বিভিন্ন বিষয়ে কলাম বা রচনা লিখে দেওয়া কলামিস্ট এর কাজ।

সমাপ্ত

পুতুল

ছিলাম উদার মানবিকতা, হলাম বিশ্ব বর্বরতা। কারণটা না হয় থাক গোপনীয়তা, সবই তোমার অবদান ওগো অপরিচিতা। হঠাৎ বিশ্ব দিল আমাকে ভীষণ বর্ষণ, ...

Theme images by konradlew. Powered by Blogger.