সম্পাদকীয়

মহান স্বাধীনতা দিবস সফল হোক

সবুজের বুকে লাল সে তো উড়বেই চিরকাল। এই একটি লাল রক্তিম সূর্য, একটি নতুন দেশ, একটি নতুন ভাষা, নতুন এক আশার ঝলকানি পাওয়ার জন্য আজ থেকে ৪৯ বছর আগে বিসর্জন দিতে হয়েছিলো তিরিশ লাখ জীবন। আজ আমরা গভীর শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করছি সেই সব জানা অজানা শহীদকে, যারা তাদের জীবনকে বিসর্জন দিয়েছে এ দেশের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে। শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করছি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে যার বলিষ্ঠ নেতৃত্বগুণে আমরা পেয়েছি এই স্বাধীনতা। 

আমাদের স্বাধীনতা অনেক ত্যাগ তিতিক্ষা আর অসীম দেশপ্রেমের ফসল হলেও স্বাধীনতা পরবর্তী ইতিহাসে এদেশকে নানান উত্থানপতন এবং চড়াই-উতরাই পার হতে হয় এবং এখনো প্রতিনিয়ত হচ্ছে। এর ফলে আমাদের দেশ এখনো তার কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যবিন্দুতে পৌছতে পারছে না। স্বাধীনতার পাঁচ দশক মহাকালের বিচারে খুব বেশি সময় না হলেও এই সময়ে অনেক দেশ উন্নত দেশের কাতারে পৌঁছে গেছে, সেখানে আমাদের দেশের মানুষ এক ধরনের অসুস্থ রাজনীতি, দুর্নীতি এবং দেশীয় অর্থ পাচারের মত ধিক্কারজনক কাজের পিছনে প্রতিযোগিতা শুরু করছে।

এসব সমস্যা নিরসনে প্রশাসনিক ও অবকাঠামোগত প্রতিবন্ধকতাসমূহ দূর করার পাশাপাশি প্রয়োগ করা উচিত সংশ্লিষ্ট কঠোর আইনগুলো যাতে করে অপরাধীরা আর সোচ্চার হতে না পারে। 
 
অত্যন্ত আশার আলো এই যে, অনেক বাধা বিপত্তি পেরিয়ে বাংলাদেশ এখন স্বল্পোন্নত দেশের গণ্ডি পেরিয়ে উন্নয়নশীল দেশের কাতারে প্রবেশ করেছে এবং এই ধারা অব্যাহত রেখে ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশের কাতারে প্রবেশ করা শুধু সময়ের ব্যাপার। এর জন্য দরকার সুপরিকল্পিত পরিকল্পনা এবং টেক্সটাইল খাতকে আরো বেগবান করা যাতে করে বাস্তবায়িত হয় বঙ্গবন্ধুর কাঙ্ক্ষিত সেই সোনার বাংলা। 

লিখেছেনঃ আব্দুস ছালাম (আপেল), ৫ম ব্যাচ

No comments

কীর্তনখোলায় অদ্রি

অদ্রি, তুমি কীর্তনখোলার পাড়ে গিয়েছো কখনো? কখনো তার মনের লুকায়িত কথাগুলো শুনছো? জানো, তার না আমার মতো অনেক কষ্ট আছে। কিন্তু সে তার ক...

Theme images by konradlew. Powered by Blogger.